অগ্নিপোশাক
মাত্র ৪০ টাকায় বাংলাদেশের যে কোন প্রান্তে বই পৌছে দেয়া হয় 
২-৫ দিনের মধ্যে বিতরণ যোগ্য

অগ্নিপোশাক

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কয়েক বছর আগে থেকে তুরস্ক সব দিক থেকে হয়ে পড়ে দুর্বল। তার নাম পড়ে যায় ইউরোপের রুগ্নমানব। ইউরোপীয় শক্তিগুলো শুধু অপেক্ষায় ছিল, কীভাবে বিশাল এ ভূখণ্ড নিজেদের মধ্যে ভাগাভাগি করে নেয়া যায়। অবশেষে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পর যখন এই রুগ্নমানব পরাজিত হয়ে মৃত্যু শয্যায় শায়িত, তখন ইউরোপীয় ভূখ শুধুমাত্র কন্সটান্টিনোপলে তাকে কফিনবদ্ধ করে রাখা হল। তারপর হিংস্র পশ্চিমাশক্তি মরালাশ ছিড়েফেড়ে খাওয়ার জন্য তুরস্কের মূল ভূখণ্ডে লেলিয়ে দেয় গ্রীকদের। ক্রুসেডারদের মত সব ধরনের তাণ্ডব তারা চালিয়ে যায়। ঠান্ডা মাথায় খুন করা হয় যাদের নাগাল পেয়েছে তাদের। রেহায় মেলেনি অশীতিপর বৃদ্ধ, এমনকি কচি শিশুদেরও। লাঞ্ছিত হয় অগণিত সম্ভ্রান্ত নারী। সর্বত্র চলতে থাকে তাদের তলোয়ার আর পাশবিক নির্যাতনের তাণ্ডব।
বিশ্ববিখ্যাত এই উপন্যাসের মূল চরিত্রে রয়েছে আয়েশা। ঠান্ডা মাথায় গ্রীকরা তার দুই বছরের নিষ্পাপ শিশুটিকে গুলি করে হত্যা করে। তখন তিনি অগ্নিপোশাক পরে নেমে পড়েন প্রতিশোধ নিতে। তবে এ প্রতিশোধের আগুন তিনি ব্যক্তি কিংবা পারিবারিক পর্যায়ে সীমাবদ্ধ রাখতে চাননি। আগুনের এই লেলিহান শিখা ছড়িয়ে দিতে তিনি কাজ শুরু করলেন। এই কাতারে শামিল হল আরো কয়েকজন নওজোয়ান সৈনিক। সংগ্রামের শেষ পর্যন্ত তারা একসাথে থাকল। যুদ্ধের সকল ধকল তারা সমানভাবে ভাগ করে নিল।
এই উপন্যাসের গল্প আমরা শুনি বিয়ামি নামের এক অফিসারের মুখে। সাকারিয়ার যুদ্ধে মাথায় গুলিবিদ্ধ হওয়ার কারণে তিনি পড়ে আছেন এক সামরিক হাসপাতালে। ইতিমধ্যেই তার পা দুটি কেটে ফেলা হয়েছে। এখন অপেক্ষায় আছেন মাথা থেকে গুলি বের করার। বেদনাদায়ক এই অবসরকে তিনি কাজে লাগান তুরস্কের মুক্তিসংগ্রামে তার অভিজ্ঞতার স্মৃতিচারণ করে। তাই বলা যায়, এই উপন্যাসটি হচ্ছে এক আহত সৈনিকের স্মৃতিকথা। 
আশা করি তুর্কি জাতির এই মহান সংগ্রামের কাহিনি আমাদের সবার জন্য বর্তমান দুর্নীতিপরায়ণ ব্যবস্থা থেকে মুক্তির এক আত্মিক খোরাকের যোগান দিবে। আমরা হয়তো মুক্তি পেতে পারি অভাব ও দুর্নীতিগ্রস্ত নষ্ট সমাজব্যবস্থার আগ্রাসন থেকে।

প্রথম প্রকাশ: অক্টোবর, ২০১৭
১৩০.০০ ২০০.০০
পৃষ্ঠা সংখ্যা :
ভাষা: বাংলা
 

ফোনে অর্ডার দিতে কল করুন

০১৭২১-৯৯৯-১১২

১। আপনি ফোন বা অনলাইন এর মাধ্যমে অর্ডার করার পর কিতাব ঘর আপনার সাথে যোগাযোগ করবে এবং আপনার বিলি ঠিকানা নিশ্চিত করবে ।

২। SMS এর মাধ্যমে আপনাকে আপনার অর্ডার নং ও অর্ডার এর মুল্য পাঠানো হবে ।

৩। কিতাব ঘর এখন ঢাকা ও এর আশেপাশে ক্যাশ অন ডেলিভারী ও কুরিয়ার সার্ভিস এর মাধ্যমে বই পাঠাচ্ছে । এবং ঢাকার বাইরে কুরিয়ার সার্ভিস এর মাধ্যমে বই পাঠাচ্ছে ।

৪। বই পাঠানোর ১-২ দিনের মধ্যে আপনারা আপানদের ঠিকানাতে বই পেয়ে যাবেন। কিন্তু বাংলাদেশের অনেক গ্রাম বা প্রত্যন্ত এলাকা যেখানে কোনো কুরিয়ার সার্ভিস এর সেবা নাই , সেখানকার জন্য জেলা বা থানা শহরের কুরিয়ার সার্ভিস অফিস হতে বই সংগ্রহ করতে হবে ।

৫। বইয়ের মুল্য bKash, ডাচ বাংলা মোবাইল বা ক্যাশ অন ডেলিভারী এর মাধ্যমে প্রদান করা যাবে । বাংলাদেশের যে কোনো প্রান্তে ৪০ টাকায় বই পৌছে দেয়া হবে ।

৬। যারা বাংলাদেশের বাইরে থেকে অর্ডার করবেন, তাদের জন্য ডেলিভারী চার্জ বইয়ের ওজন ও দেশের উপর নির্ভর করবে । বিভিন্ন দেশের ও বিভিন্ন পরিমানের ডেলিভারী চার্জ দেখতে এখানে ক্লিক করুন ।

অনুগ্রহ করে কিতাবঘর ডট কমে লগইন করুন । লগইন

মাত্র ৪০ টাকায়

২-৫ দিনের মধ্যে ডেলিভারি দেয়া হয়
 

ক্যাশ অন ডেলিভারি

শুধু মাত্র ঢাকা ও এর আশেপাশে প্রযোজ্য
 

০১৭২১ ৯৯৯ ১১২

ফোনের মাধ্যমে ও অর্ডার নেয়া হয়