সালাম ,মুসাফাহা,মুআনাকা ও অনুমতি প্রার্থনা
মাত্র ৪০ টাকায় বাংলাদেশের যে কোন প্রান্তে বই পৌছে দেয়া হয় 
২-৫ দিনের মধ্যে বিতরণ যোগ্য

সালাম ,মুসাফাহা,মুআনাকা ও অনুমতি প্রার্থনা

‘তাহিয়্যাতুল মু’মিন বা মু’মিনের অভিবাদন’ নামক এ পুস্তকে চারটি বিষয় আলোচিত হয়েছে। 
১। ইসলামে সালামের গুরুত্ব।
২। মুসাফাহা ও মুআনাকা।
৩। কারো আবাসগৃহে প্রবেশের জন্য অনুমতি প্রার্থনা করা। 
৪। হাঁচি ও তার জবাব।
এই চারটি বিষয় ইসলামী ভ্রাতৃত্ব, বন্ধুত্ব ও ঐক্য সৃষ্টির ক্ষেত্রে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সম্প্রীতিময় সামাজিক বন্ধন গড়ার ক্ষেত্রেও এ সবের বিকল্প নেই। 
১। সালামের গুরুত্ব এ থেকেই অনুমান করা যায় যে, আল্লাহ্ তাআলা যখন প্রথম মানব হযরত আদম আলাইহিস সালামকে সৃষ্টি করলেন, তখন সর্বপ্রথম তাঁকে নির্দেশ দিলেন যে, তুমি ফেরেশতাদের কাছে গিয়ে সালাম কর এবং দেখ তারা সালামের কি জবাব দেয়। যেমন, আল্লাহর বাণী-
وَعَلَّمَ آدَمَ الْأَسْمَاءَ كُلَّهَا

‘আর তিনি আদমকে যাবতীয় নাম শিক্ষা দিলেন।’ (সূরা বাকারা: ৩১)
এর মধ্যে সালাম ও তার জবাব বলাও তালিকাভুক্ত ছিল। 
২। ফেরেশতাগণ যখন হযরত ইবরাহীম আলাইহিস সালামের সাথে সাক্ষাৎ করতে আসেন, তখন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বাক্য বিনিময় ছিল তাদের পরস্পরের মধ্যে সালাম বিনিময়।
৩। আল্লাহ্ তাআলা মি’রাজ রজনীতে নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে যে দয়া ও সম্মান দান করেছেন তা সালামই ছিল। আসসালামু আলাইকা আয়্যুহান্নাবিয়্যু ওয়া রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আল্লাহ্্র এই হাদিয়ার মধ্যে অন্য নবীগণ এবং নেক বান্দাগণকে শামিল করার জন্য বললেন- আসসালামু আলাইনা ওয়া আলা ইবাদিল্লাহিস সালিহীন।
৪। সালাম প্রকৃতপক্ষে ইসলামের জন্য স্থায়িত্ব ও চিরন্তনতার দুআ করা। কেননা, ইসলামের অর্থ হচ্ছে দুনিয়া ও আখিরাতের শান্তি ও নিরাপত্তা। সালামকারী ব্যক্তি যেন বলছে যে, হে সম্বোধিত ব্যক্তি! আল্লাহ্ তাআলা তোমাদেরকে দুনিয়া ও আখিরাতের সমস্ত বিপদ-মুসীবত, দুঃখ-কষ্ট ও পেরেশানী থেকে নিরাপদ রাখুন। আর তোমার উপর আল্লাহ্ তাআলার অফুরন্ত রহমত ও বরকত নাযিল হোক। এতে প্রতীয়মান হল যে, সালামের প্রচার ও প্রসার হচ্ছে প্রকৃতপক্ষে ইসলামের স্থায়িত্ব ও অবিনশ্বরতার দুআ করা। 
৫। যেসব আয়াতে আল্লাহ্ তাআলা নবীদের প্রতি সালাম প্রেরণ করেছেন যেমন, 

وَسَلَامٌ عَلٰى عِبَادِهِ الَّذِيْنَ اصْطَفٰى এবং  وَسَلَامٌ عَلٰى الْمُرْسَلِيْنَ

প্রভৃতি। যেখানে নিরাপত্তার দুআ নয়, বরং তাঁদের নিরাপত্তার জন্য সুসংবাদ দান করা। হ্যাঁ, নবীগণ ও ফেরেশতাগণের একে অপরের সালামের মধ্যে বিনয় ও সতর্কতামূলক নিরাপত্তার দুআ রয়েছে। আর জান্নাতবাসী যে একে অপরকে সালাম করবে তার মধ্যে রয়েছে পরস্পরকে দোযখের আযাব থেকে নিরাপত্তার সুসংবাদ। 
মোটকথা, ‘তাহিয়্যাতুল মু’মিন বা মু’মিনের অভিবাদন’ নামক এ পুস্তক বিষয়বস্তু হিসেবে সম্ভবত প্রথম ও একক। এর মধ্যকার আলোচ্য বিষয়গুলো সবিস্তার ও প্রামাণ্য। 

৭৮.০০ ১৩০.০০
পৃষ্ঠা সংখ্যা : ১৪৮
ভাষা: বাংলা
প্রসঙ্গ: ইসলামী জীবন
 

ফোনে অর্ডার দিতে কল করুন

০১৭২১-৯৯৯-১১২

image01
image02
image01

১। আপনি ফোন বা অনলাইন এর মাধ্যমে অর্ডার করার পর কিতাব ঘর আপনার সাথে যোগাযোগ করবে এবং আপনার বিলি ঠিকানা নিশ্চিত করবে ।

২। SMS এর মাধ্যমে আপনাকে আপনার অর্ডার নং ও অর্ডার এর মুল্য পাঠানো হবে ।

৩। কিতাব ঘর এখন ঢাকা ও এর আশেপাশে ক্যাশ অন ডেলিভারী ও কুরিয়ার সার্ভিস এর মাধ্যমে বই পাঠাচ্ছে । এবং ঢাকার বাইরে কুরিয়ার সার্ভিস এর মাধ্যমে বই পাঠাচ্ছে ।

৪। বই পাঠানোর ১-২ দিনের মধ্যে আপনারা আপানদের ঠিকানাতে বই পেয়ে যাবেন। কিন্তু বাংলাদেশের অনেক গ্রাম বা প্রত্যন্ত এলাকা যেখানে কোনো কুরিয়ার সার্ভিস এর সেবা নাই , সেখানকার জন্য জেলা বা থানা শহরের কুরিয়ার সার্ভিস অফিস হতে বই সংগ্রহ করতে হবে ।

৫। বইয়ের মুল্য bKash, ডাচ বাংলা মোবাইল বা ক্যাশ অন ডেলিভারী এর মাধ্যমে প্রদান করা যাবে । বাংলাদেশের যে কোনো প্রান্তে ৪০ টাকায় বই পৌছে দেয়া হবে ।

৬। যারা বাংলাদেশের বাইরে থেকে অর্ডার করবেন, তাদের জন্য ডেলিভারী চার্জ বইয়ের ওজন ও দেশের উপর নির্ভর করবে । বিভিন্ন দেশের ও বিভিন্ন পরিমানের ডেলিভারী চার্জ দেখতে এখানে ক্লিক করুন ।

অনুগ্রহ করে কিতাবঘর ডট কমে লগইন করুন । লগইন

মাত্র ৪০ টাকায়

২-৫ দিনের মধ্যে ডেলিভারি দেয়া হয়
 

ক্যাশ অন ডেলিভারি

শুধু মাত্র ঢাকা ও এর আশেপাশে প্রযোজ্য
 

০১৭২১ ৯৯৯ ১১২

ফোনের মাধ্যমে ও অর্ডার নেয়া হয়